বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় পত্রিকা

বিশ্বের সর্বপ্রথম পত্রিকা প্রকাশিত হয় ১৬০৫ সালে। জার্মানি নাগরিক জোহান কারোলাস (Johann Carolus) সর্বপ্রথম পত্রিকা প্রকাশ করে যার নাম রিলেশন (Relation)। এরপর থেকে ধীরে ধীরে বিভিন্ন পত্রিকার প্রচলন ঘটে। প্রথমে এই পত্রিকা গুলো লেখা হতো সম্পূর্ণ হাতে এবং এর জন্য প্রয়োজন হতো অনেক জনবলের।
বাংলাদেশের প্রথম পত্রিকার নাম দৈনিক আজাদ (The Azad). এটিই সর্বপ্রথম বাংলা ভাষায় লেখা কোন দৈনিক পত্রিকা। শুরু থেকেই এই পত্রিকার বাংলা ও আসাম ২ ভাষাতেই প্রকাশ হতে থাকে। দেশ ভাগের পর ১৯ অক্টোবর ১৯৪৮ সালে পত্রিকা অফিস ভারত থেকে ঢাকাতে স্থানান্তর করা হয় এবং অর্থনৈতিক কারণে ১৯৯০ সালে এই পত্রিকাটি বন্ধ হয়ে যায়।

যাইহোক আমার এখন জানবো আমাদের দেশে চলমান জনপ্রিয় কিছু পত্রিকার সম্পর্কে:

দৈনিক প্রথম আলো

১৯৯৮ সালের ৪ নভেম্বর প্রকাশিত হয় এই পত্রিকাটি। প্রথম আলোর প্রকাশক মিডিয়া স্টার লিমিটেড এবং বর্তমানে এই পত্রিকার সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করছেন সাংবাদিক ও রাজনীতিবিদ মতিউর রহমান। সামাজিক আন্দোলন হিসেবে এই পত্রিকার প্রথম স্লোগান ছিল যা কিছু ভালো তার সঙ্গে প্রথম আলো সর্বশেষে ২০ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে স্লোগান পরিবর্তন করে ভালোর সাথে আলোর পথে রাখা হয়। এই পত্রিকার দৈনিক প্রিন্ট সংস্কারের পাশাপাশি অনলাইন সংস্কারও আছে। জানুয়ারী ২০২১ পর্যন্ত এর প্রচার সংখ্যা ৫,০১,৮০০ টি এবং এ অনুযায়ী এটি দেশের দ্বিতীয় প্রচারিত একটি পত্রিকা।

তথ্যসূত্র: উইকিপিডিয়া

বাংলাদেশ প্রতিদিন

আনন্দবাজার পত্রিকার পর এটি দ্বিতীয় বৃহত্তম ও বাংলাদেশের মধ্যে বৃহৎ সংবাদ পত্র প্রচার সংখ্যার দিক থেকে। ২০১০ সালে ১৫ই মার্চ প্রতিষ্ঠিত হয় এই পত্রিকা। এটি দৈনিক পত্রিকা হলেও ৪ অক্টোবর ২০১৮ সালে ইউরোপে এটি সাপ্তাহিক পত্রিকা হিসেবে যাত্রা শুরু করে এবং লন্ডন থেকে প্রকাশিত হয়। এই পত্রিকার প্রকাশক ইস্ট ওয়েস্ট মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেড এবং সম্পাদক হচ্ছেন নঈম নিজাম জানুয়ারী ২০২১ পর্যন্ত এর প্রচার সংখ্যা ৫,৫৩,৩০০ টি পত্র প্রকাশ হয় এই পত্রিকার।

দৈনিক কালের কণ্ঠ

বাংলাদেশের প্রথম শ্রেনীর জাতীয় পত্রিকাগুলো মধ্যে দৈনিক কালের কণ্ঠ একটি। এই পত্রিকাটি ২০১০ সালের ১২ই জানুয়ারী আবেদ খানের সম্পাদনায় বসুন্ধরা ইস্ট ওয়েস্ট মিডিয়া গ্রুপের পক্ষ থেকে প্রকাশিত হয়। ইস্ট ওয়েস্ট মিডিয়া গ্রুপের মতে পত্রিকাটির প্রিন্ট সংস্কারণ আড়াই লাখেরও বেশি। ২০২১ সালের মে মাস পর্যন্ত এর ২,৯০,২০০ টি সংখ্যা প্রচারিত হয়। এই ‍দিক থেকে এটি দেশের তৃতীয় সর্বোচ্চ প্রকাশিত পত্রিকা। প্রিন্ট মিডিয়ার পাশাপাশি এই পত্রিকার ২ টি ভাষায় অনলাইন সংস্কারণ আছে।

দৈনিক যুগান্তর

২০০০ সালের ১ম ফেব্রুয়ারী খ্যাতনামা সাংবাদিক গোলাম সারওয়ারের সম্পাদনায় যুাগান্তর পত্রিকা প্রথম প্রকাশিত হয়। যুগান্তর পত্রিকা দেশের সুনামধন্য যমুনা গ্রুপের একটি প্রতিষ্ঠান। সত্যের সন্ধানে নির্ভীক শ্লোগানে এই পত্রিকাটি এখন পর্যন্ত ২ লক্ষ ৩০ হাজারের বেশি সংখ্যা প্রকাশ করেছে। যুগান্তর জাতীয় বিষয় নিয়ে এখন পর্যন্ত অনেক সাহসী রিপোর্ট করেছে যার জন্য মামলা, হামলা সহ অনেক প্রতিকূলতার মোকাবেলা করতে হয়েছে এই পত্রিকার অনেক সাংবাদিক ও কর্তৃপক্ষকে।

নিয়মিত সংবাদ প্রকাশের পাশাপাশি বিভিন্ন সামাজিক কর্মকান্ড যেমন- বই উৎসব, মুক্তিযোদ্ধা সংবর্ধনা, শিশুদের চিত্রাংকন প্রতিযোগিতাসহ আরও অনেক কর্মসূচি পালন করে।

ওজন কমানোর ১০টি সহজ উপায়

দৈনিক ইত্তেফাক

বাংলাদেশের স্বাধীনতার আন্দোলনের সাথে এই পত্রিকা ওতপ্রোতভাবে জড়িত। ১৯৪৯ সালের ২৩ জুন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, হোসেন শহীদ সোহ্‌রাওয়ার্দী, আবদুল হামিদ খান ভাসানী, সামসুল হক ও বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গের উপস্থিতিতে আওয়ামী মুসলিম লীগ নামক নতুন একট রাজনৈতিক দলে গঠন করা হয়। এই দলের ‍মুুখপত্র হিসেবে একটি সাপ্তাহিক পত্রিকা প্রকাশের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।
এই সিদ্ধান্তের ভিত্তিতে ১৯৪৯ সালের ১৫ আগস্ট সাপ্তাহিক পত্রিকা হিসেবে যাত্রাশুরু দৈনিক ইত্তেফাক। তৎকালীন সময় এই পত্রিকার প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ছিলেন আবদুল হামিদ খান ভাসানী, সম্পাদক ছিলেন তোজাম্মেল হোসেন মানিক মিয়া এবং প্রকাশকের দায়িত্বে ছিলেন ইয়ার মোহাম্মদ খান।

পরবর্তীতে ১৯৫৩ সালের ২৪ ডিসেম্বর এটি দৈনিক পত্রিকা হিসেবে যাত্রাশুরু করে এবং ২৫ ডিসেম্বর প্রথম সংখ্যা প্রকাশ হয়।

দৈনিক ইনকিলাব

ইনকিলাব দেশরে জাতীয় পত্রিকাগুলোর মধ্যে অন্যতম। পত্রিকটি ১৯৮৬ সালের ৬ জুন প্রথম প্রকাশিত হয় এবং এ মালিক  ইনকিলাব পাবলিকেশনস লিমিটেড। পত্রিকাটির প্রতিষ্ঠাতা এম এ মাওলানা আবদুল মান্নান প্রথম প্রকাশকের দায়িত্ব পালন করেন। ২০১৪ সালের ১৬ জানুয়ারিতে ‘সাতক্ষীরায় যৌথ বাহিনীর অপারেশনে ভারতীয় বাহিনীর সহায়তা’ শীর্ষক একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয় দৈনিক ইনকিলাবের প্রথম পাতায়। সংবাদটি প্রকাশিত হবার পর এটি মিথ্যা, বানোয়াট ও ভিত্তিহীন বলে দাবি করে তৎকালীন সরকার এবং সম্পাদক, প্রকাশক, প্রধান বার্তা সম্পাদক ও একজন প্রতিবেদকের বিরুদ্ধে আইসিটি আইনে মামলা করা হয় এবং ইনকিলাবের ছাপাখানায় তল্লাশি চালিয়ে সিলগালা করে দেয়া হয়। এর কিছুদিন পর ইনকিলাবের পক্ষথেকে ভুল স্বীকার করা হলে তাদের ছাপাখানা খুলে দেয় হয়।

দৈনিক জনকণ্ঠ

দৈনিক জনকণ্ঠ প্রথম প্রকাশিত হয় ১৯৯৩ সালের ২১ শে ফেব্রুয়ারি। সাংবাদিক মোহাম্মদ আতিকউল্লাহ খান মাসুদের স্ত্রী শামীমা এ খানের সম্পাদনায় এ পত্রিকা প্রকাশিত হয়। ৩০ জুন ২০১৮ তারিখে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র ও প্রকাশনা অধিদপ্তর কর্তৃক প্রকাশিত এক হিসেব অনুযায়ী এ সংবাদপত্রের প্রকাশিত সংখ্যা ২ লক্ষ ৭৫ হাজার কপি। যা অনুযায়ী বাংলাদেশে প্রকাশিত দৈনিক জাতীয় পত্রিকার মধ্যে ষষ্ঠ।

দৈনিক সমকাল

২০০৫ সালের ৩১ মে থেকে প্রকাশিত হচ্ছে জনপ্রিয় এই পত্রিকাটি। এ পত্রিকাটি প্রতিষ্ঠার পাশাপাশি সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন বিশিষ্ট সাংবাদিক গোলাম সারোওয়ার। ২০১৮ সালের ১৩ আগস্ট এই বরেন্য সাংবাদিকের মৃত্যু বরণ করে। এরপর দৈনিক সমকালের নির্বাহী সম্পাদক মুস্তাফিজ শফি ভারপ্রাপ্ত সম্পাদকের দায়িত্ব পান।

ডায়াবেটিস ও ডায়াবেটিসের লক্ষণ সমূহ

দৈনিক সংবাদ

দৈনিক সংবাদ দেশের প্রাচীনতম পত্রিকাগুলো মধ্যে একটি। ১৯৫১ সালের ১৭ মে তারিখে এটি প্রথম প্রকাশিত হয়। বর্তমান প্রকাশক হিসাবে দায়িত্বে আছেন আলতামাস কবির।
১৯৫১ সালের ১৭ মে খায়রুল কবিরের সম্পাদনা ও নাসিরউদ্দিন আহমদের ব্যবস্থাপনায় এই পত্রিকাটি প্রথম প্রকাশিত হয়। পূর্ব পাকিস্থান তথা বাংলাদেশের বিভিন্ন প্রগতিশীল আন্দোলনের সাথে এই পত্রিকার একাত্বতা থাকার কারণে প্রায়ই এর দপ্তরে পুলিশি অভিযান পরিচালনা করা হতো এবং শাসকগোষ্ঠী বরাবরই এর প্রতি বিরূপ ছিল।

দৈনিক ভোরের কাগজ

দৈনিক ভোরের কাগজ বাংলাদেশের জনপ্রিয় সংবাদ পত্রগুলোর মধ্যে একটি। এটি ঢাকা থেকে প্রকাশিত হয়। এর বর্তমান সম্পাদকের দায়িত্বে আছেন শ্যামল দত্ত। এই পত্রিকার নিয়মিত আয়োজনের মধ্যে রয়েছে দেশ-বিদেশের নিয়মিত সংবাদ, সম্পাদকীয়, মুক্তচিন্তা, অর্থনীতি ইত্যাদি।

বাংলাদেশে প্রকাশিত অর্ধশত জাতীয় পত্রিকার মধ্যে উপরোক্ত পত্রিকাগুলো বেশি জনপ্রিয়। আমরা চেষ্টা করেছি জনপ্রিয় পত্রিকাগুলোর ইতিহাস ও তাদের বর্তমান অবস্থা তুলে ধরার।

Leave a Reply